ওয়ালটন স্মার্ট টিভি 32 ইঞ্চি প্রাইস ইন বাংলাদেশ 2023

ওয়ালটন স্মার্ট টিভি 32 ইঞ্চি প্রাইস ইন বাংলাদেশ 2023

আসসালামু আলাইকুম আপনি যদি ওয়ালটন স্মার্ট টিভি ৩২ ইঞ্চি প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আজকের পোস্ট আপনার জন্য। এখানে আপনাদের সাথে আমরা বেশ কিছু ওয়ালটন কোম্পানির স্মার্ট টিভি এবং এলইডি টিভি সম্পর্কে আলোচনা করব যেগুলো অনেক জনপ্রিয় এবং খুব ভালো পারফরমেন্স দিয়ে থাকে।

এখানে আমরা টিভিগুলোর দাম বলার পাশাপাশি এই টিভির যাবতীয় স্পেসিফিকেশন গুলো আপনাদের সাথে আলোচনা করব। তাহলে চলুন এখন আমরা এই ওয়ালটন স্মার্ট টিভি ৩২ ইঞ্চি প্রাইস ইন বাংলাদেশ ২০২৩ নিয়ে আলোচনা শুরু করি।

ওয়ালটন স্মার্ট টিভি 32 ইঞ্চি প্রাইস ইন বাংলাদেশ 2023

প্রথমে আমরা ওয়ালটন কোম্পানির ডিভিডির মডেল নাম্বারটি উল্লেখ করব এবং তারপরে এই টিভির যাবতীয় স্পেসিফিকেশন এবং ওয়ালটন স্মার্ট টিভি ৩২ ইঞ্চি দাম কত ২০২৩ সেটাও উল্লেখ করে দেব।

1. W32D120B LED TV

প্রথমেই আমরা যে ওয়ালটন স্মার্ট টিভি ৩২ ইঞ্চি দাম নিয়ে কথা বলবো এটির মডেল নাম হলো W32D120B . আর এই মডেলের স্মার্ট টিভিটির দাম ওয়ালটন কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে লেখা রয়েছে ১৯৯০০ টাকা। এএই টিভি টি একটি 32 ইঞ্চি এলইডি টিভি।

এই টিভিটিতে আপনারা দুইটা ইউএসবি পোর্ট পাবেন এছাড়াও অন্য ডিভাইসের সাথে কানেক্ট করার জন্য তিনটি এইচডিএমআই পোর্ট সাথে একটি এভি পোর্ট এবং আরেকটি অডিও আউটপুট পাবেন। এই টিভিতে আপনারা খুব ভালো রেজুলেশন পাবেন এবং এর ডিসপ্লে তে ১৬ মিলিয়ন এর অধিক কালার সাপোর্টেট রয়েছে।

এলইডি টিভিটির স্ক্রিন সাইজ হচ্ছে ৮১৩ মিলিমিটার এবং এই স্ক্রিনের এক্সপেক্ট রেশিও ১৬ অনুপাত ৯। এটির ভিউয়িং অ্যাঙ্গেল হচ্ছে হরিজন্টালি ১৭৮ ডিগ্রী এবং ভার্টিকালি ১৭৮ ডিগ্রি। এছাড়াও এই টিভির রেজুলেশন হল ১৩৬৬ ইনটু ৭৬৮.

প্রচুর পরিমাণে ফিচার যুক্ত করা হয়েছে এই ওয়ালটন কোম্পানির টিভিডির মধ্যে। এখানে আপনারা 3 ডি কম্বো ফিল্টার টেকনোলজি উপভোগ করার পাশাপাশি খুব কম পাওয়ার কনজিউম করে এমন টেকনোলজি ও পেয়ে যাবেন।

টিভিটির মধ্যে যে সমস্ত মাল্টিমিডিয়া সাপোর্ট করে সেগুলো হল Mp4 এভিআই এমকেভি সহ যে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ মিডিয়া ফরমেট রয়েছে তার সবকিছুই এই টিভির মধ্যে সাপোর্ট করে। এই টিভির ওজন হচ্ছে চার কেজির মতো। এছাড়াও যেহেতু এখানে অফিসিয়ালি পাঁচ বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া হবে এই কারণে নিশ্চিন্তে ডিভিডি আপনারা কিনে চালাতে পারেন।

2. W32D120B WALTON LED TV

এই টিভির ও স্ক্রিনের সাইজ হচ্ছে ৮১৩ মিলিমিটার অর্থাৎ যেটা ৩২ ইঞ্চি। ওয়াল্টন কোম্পানি থেকে এই টিভির ও দাম নির্ধারণ করা হয়েছে 19900 টাকা। একটি এলইডি টিভি ভালো ভাবে চালানোর জন্য যে সমস্ত ফিচার প্রয়োজন তার সবকিছুই এই টিভির মধ্যে দেওয়া হয়েছে।

শুধুমাত্র টিভি হিসেবে নয় এটিকে আপনারা চাইলে মনিটর হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। এখানে অডিও আউটপুট নেওয়ার জন্য একটি ডিজিটাল অডিও আউটপুট পোর্ট দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও এখানে ডিসপ্লেটির কালার ডেপথ আট বিট দেওয়া হয়েছে এবং এখানে মোট ১৬.৭ মিলিয়ন কালার সাপোর্ট করবে।

টেকনিক্যাল স্পেসিফিকেশন এর দিকে তাকালে দেখা যাবে এই ডিভিডির ব্রাইটনেস দেওয়া হয়েছে 250 cd/m স্কয়ার। এছাড়াও ডিসপ্লেটির কনট্রাস্ট দেওয়া হয়েছে ৪০০০:১ । এখানে আপনারা এর রেসপন্স টাইম পাবেন ২০ m /s যেটা হবে টিপিক্যাল। এখানে দুইটা এইচডিএমআই পোর্ট এবং দুইটি usb 2. ও পোর্ট দেওয়া থাকবে। এখানে আপনারা এই টিভির মধ্যে ওয়ালটন কোম্পানি থেকে পাঁচ বছর মেয়াদের একটি অফিসিয়াল ওয়ারেন্টি পেয়ে যাবেন।

ইমেজ , অডিও এবং ভিডিওসহ যাবতীয় মিডিয়া ফাইল গুলো খুব সহজেই এই টিভির মধ্যে চালানো যাবে। এছাড়াও এখানে আপনারা স্টেরিও ও সাউন্ড ইফেক্ট উপভোগ করতে পারবেন। টিভিটির নিচের দিকে এর স্পিকার দেওয়া হয়েছে এবং এখানে অডিও আউটপুট দেওয়া হয়েছে 2 × 10 w। যদি আপনি শোরুম থেকে ওয়ালটন কোম্পানির এই ৩২ ইঞ্চি টিভিটি করাই করেন তাহলে এখানে এর সাথে একটি পাওয়ার কেবল পাবেন একটি ইউজার ম্যানুয়াল পাবেন রিমোট কন্ট্রোল ব্যাটারি এবং একটি রিমোট ও সাথে পেয়ে যাবেন।

3. WD32HLE LED TV

যদি আপনারা ওয়ালটন কোম্পানির ৩২ ইঞ্চির কমদামের মধ্যে একটি এলইডি টিভি ক্রয় করতে চান তাহলে এটি দেখতে পারেন। কারণ এই টিভির দাম কোম্পানি থেকে নির্ধারণ করা হয়েছে 18900 টাকা। টিভিটির ওজন কোম্পানি থেকে ক্লেম করা হয়েছে ৪ কেজি ৬০০ গ্রাম।

আর এখানে স্ট্যান্ড ছাড়া টিভির ওজন বলা হয়েছে চার কেজি ৩৭০ গ্রাম।

পাওয়ার সাপ্লাই সেকশনে এখানে আপনাকে ১০০ ভোল্ট থেকে ২৪০ ভোল্ট ইনপুট দিতে হবে এবং এই টিভিটি সর্বোচ্চ ৪৫ ওয়াট পাওয়ার কনজিউম করবে। এখানে স্ট্যান্ড বাই পাওয়ার Consumption ০.৫ ওয়াট এর নিচে রয়েছে। টিভিটির বক্সের সাথে আপনারা এক্সট্রা একটি দেওয়ালে লাগানোর জন্য সুন্দর মজবুত স্টান্ড পাবেন এটা ব্যবহার করে টিভিটিকে দেওয়ালে খুব সুন্দর ভাবে সেট করে নিতে পারবেন।

এছাড়াও টিভির সাথে রিমোটের ব্যাটারি সহ রিমোট এবং ইউজার ম্যানুয়াল পেয়ে যাবেন। আপনারা চাইলে ডিস লাইন কিংবা ইউএসবি কেবল ব্যবহার করে এই টিভিতে ভিডিও অডিও সাপ্লাই করতে পারবেন। এখানে আপনারা 199 টির অধিক চ্যানেল পেয়ে যাবেন।

কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করার জন্য টিভিতে এইচডিএমআই কেবল এবং ভিজিয়ে কেবল ইনপুট দেওয়ার জ্যাক পাবেন । এছাড়াও এই টিভির পিছনে ইয়ারফোন ব্যবহার করার জন্য একটি আউটপুট জ্যাক দেওয়া হয়েছে যেটার মাধ্যমে আপনারা ইয়ারফোন কানেক্ট করেও গান শুনতে পারবেন।

টিভিটির ডিসপ্লের মধ্যে আপনারা নয়েজ কমানোর জন্য টেকনোলজি পেয়ে যাবেন যেটা খুবই কার্যকরী। এছাড়াও এখানে দুর্বল সিগনাল গুলোকে বাড়িয়ে তোলাআর টেকনোলজি ও ব্যবহার করা হয়েছে যেটা আপনার ডিস লাইন ব্যবহার করে চ্যানেল দেখার অভিজ্ঞতাকে অনেকাংশে ভালো করবে। বড় সুবিধা হচ্ছে এই টিভি ক্রয় করলে কোম্পানি থেকে অফিসিয়ালি পাঁচ বছরের ওয়ারেন্টি পাবেন।

4. W32D120E11G2 WALTON SMART TV

আপনার বাজেট যদি বেশি হয়ে থাকে এবং আপনি ওয়ালটন কোম্পানি থেকে স্মার্ট টিভি ক্রয় করতে চান তাহলে এই প্যাকেজটি আপনার জন্য ভালো হতে পারে। এই টিভিটি কম দামের মধ্যে ৩২ ইঞ্চি walton স্মার্ট টিভি। স্মার্ট মানে হচ্ছে আপনারা খুব সহজে এতে ইন্টারনেট চালাতে পারবেন এবং আরো অনেক সুযোগ-সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

তো এই টিভির মধ্যে কোম্পানি থেকে অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন ১১ ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও এখানে র্যাম এক জিবি ব্যবহার করা হয়েছে এবং ইন্টার্নাল স্টোরেজ হিসেবে 8gb স্পেস দেওয়া হয়েছে। জি পি ইউ হিসেবে এখানে মালি g31 জিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে। আর এই জিপিইউ এর ফ্রিকোয়েন্সি হচ্ছে ৫৫০ মেগা হার্জ পর্যন্ত।

যেহেতু এখানে এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে এই কারণে এন্ড্রয়েড এর যাবতীয় সুবিধা গুলো এই টিভির মাধ্যমে উপভোগ করা যাবে। এখানে আপনারা যেহেতু google play store ব্যবহার করতে পারবেন এই কারণে প্লে স্টোর থেকে যাবতীয় অ্যাপ্লিকেশন গুলো টিভিতে ইন্সটল করতে পারবেন।

এই স্মার্ট টিভিটি ৩২ ইঞ্চি এবং এর ডিসপ্লের এস্পেক্ট রেশিও হচ্ছে ১৬:০৯ । এখানে এই ডিসপ্লের ফ্রেম রেট পাবেন ৬০ হার্জ পর্যন্ত। পাওয়ার সাপ্লাই সেকশনে এইখানে আপনাকে ১১০ ভোল্ট থেকে ২৪০ ভোল্টের ৫০ অথবা ৬০ হার্জ এসি কারেন্ট সাপ্লাই দিতে হবে। একটি স্মার্ট টিভি চালানোর জন্য যে সমস্ত ফিচার প্রয়োজন তার সবকিছুই কেটে দেওয়া আছে এবং গুরুত্বপূর্ণ পোর্ট গুলোও ইনক্লুড করা আছে।

তবে মনে রাখবেন ওয়ালটন এর এই স্মার্ট টিভির সাথে কিন্তু আপনারা পাঁচ বছর এর অফিসিয়াল ওয়ারেন্টি পেয়ে যাবেন। অর্থাৎ টিভি কেনার পর পাঁচ বছর এর মধ্যে কোন সমস্যা হলে কোম্পানি থেকে এই সমস্যার সমাধান করে দেয়া হবে। আর এই টিভির দাম কোম্পানি থেকে নির্ধারণ করা হয়েছে 36 হাজার 900 টাকা।

5. W32D120HG2 Andorid Tv

এটিও ওয়ালটন কোম্পানির আরেকটি স্মার্ট বা এন্ড্রয়েড টিভি। তবে এই প্রোডাক্ট এর দাম আগে বেশি ছিল এখন এর দাম কিছুটা কমেছে। বর্তমানে ওয়ালটন কোম্পানির এই অ্যান্ড্রয়েড টিভিটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ হাজার ৯০০ টাকা। যেহেতু এন্ড্রয়েড টিভি গুলোর মধ্যে অনেক বেশি ফিচার থাকে এই কারণে এগুলোর দাম তুলনামূলকভাবে বেশি হয়ে থাকে।

এই টিভিতে আপনারা অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ভার্সন 9 পেয়ে যাবেন এবং এর স্ক্রিন সাইজ হচ্ছে ৮১৩ মিলিমিটার। এখানে যে ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে এই ডিসপ্লে রেজুলেশন হচ্ছে ১৩৬৬ ইনটু ৭৬৮ পিক্সেল। টিভিটির সিপিইউ সেকশনে কোয়াড কোর এ আর এম কটেক্সের cpu ব্যবহার করা হয়েছে।

এছাড়াও এখানে এই সিপিইউ এর ফ্রিকোয়েন্সি হচ্ছে ১.১ গিগা হার্জ। এখানে জিপিইউ হিসেবে মাল্টিকোর মালি এর জিপিও ব্যবহার করা হয়েছে আর এই জিপিইউ এর ফ্রিকোয়েন্সি হলো ৪৭০ মেগা হার্জ। টিভিটি যাতে ভালোভাবে পারফরমেন্স করতে পারে এজন্য এখানে ddr 1gb রেম ব্যবহার করা হয়েছে এবং স্টোরেজ এ ৮ জিবি ইন্টার্নাল স্পেস দেওয়া হয়েছে।

এই টিভির ডিসপ্লের রিফ্রেস রেট ও ৬০ হার্জ। এখানে দুইটি স্পিকার পেয়ে যাবেন আর এই স্পিকার এর অডিও পাওয়ার আউটপুট হলো দুই × দশ ওয়াট। একটি এইচডিএমআই পোর্ট সহ যাবতীয় গুরুত্বপূর্ণ পোর্ট গুলো এডিবির মধ্যে দেওয়া হয়েছে। এই স্মার্ট টিভির সাথেও আপনারা অফিসিয়ালি পাঁচ বছরের ওয়ারেন্টি পাবেন ওয়ালটন কোম্পানির পক্ষ থেকে।

পরিশেষে

আশা করি আজকের পোস্ট পরার মাধ্যমে ওয়ালটন স্মার্ট টিভি প্রাইস ইন বাংলাদেশ 2023 সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। এখানে আমরা সেই সমস্ত টিভিগুলো সম্পর্কে আলোচনা করেছি যেগুলোর দাম তুলনামূলকভাবে কম এবং পারফরম্যান্স ও বেশ ভালো। তো পোস্টটি পড়ার পর যদি আপনার মনে আরো কোন প্রশ্ন থাকে বা অন্য কোন টিভি সম্পর্কে আরো জানতে চান তাহলে কমেন্ট করতে পারেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *