মসজিদের স্পিকারের দাম

মসজিদের স্পিকারের দাম | মসজিদের সাউন্ড বক্সের দাম কত ২০২৩

আসসালামু আলাইকুম, আপনি যদি মসজিদের স্পিকারের দাম এবং মসজিদের সাউন্ড বক্সের দাম কত এই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আজকের এই পোস্ট সম্পূর্ণ পড়তে হবে।

বর্তমানে মসজিদগুলো অনেক বড় বড় করে বানানো হয়েছে এবং সেখানে হাজার হাজার মুসলিম এসে নামাজ আদায় করে। তো এখন ইমাম সাহেব যদি শুধু মুখে বক্তব্য দেয় তাহলে পিছন থেকে শোনা যায় না। যার কারণে মসজিদের মধ্যে এখন মসজিদের সাউন্ড সিস্টেম লাগানো দরকার।

কিন্তু মার্কেটে যেহেতু এখন অনেক ধরনের সাউন্ড সিস্টেম পাওয়া যায় এই কারণে অনেকেই আছে যারা সঠিক জিনিসটা চিনতে পারেন না। তো আজকের এই পোস্টে আমরা সেরা কয়েকটি মসজিদের স্পিকার এর দাম এবং রিভিউ আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছি।

মসজিদের স্পিকারের দাম

মসজিদের মধ্যে এমন স্পিকার লাগানো দরকার যেগুলোতে মোটামুটি সাউন্ড ভালো আসে। আর আমাদের দেশের মসজিদগুলোতে সাধারণত অয়ুঝা কোম্পানির স্পিকার গুলো লাগানো হয়।

তো আমরা এই পোস্টে কম দামের মধ্যে যে সমস্ত ভালো ভালো স্পিকার রয়েছে সেগুলোই আপনাদের মাঝে তুলে ধরব ।

Ahuja CS-662T 6W PA Ceiling Speaker

মসজিদের ছাদে লাগানোর জন্য কম দামের মধ্যে এই সাউন্ড সিস্টেমটি সবথেকে ভালো । স্পিকারটি আপনারা দুই হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

মনে রাখবেন এটি কিন্তু দেওয়ালে লাগানোর জন্য নয়। শুধুমাত্র মসজিদের ছাদে লাগানোর জন্য স্পিকারটি একটি সেরা চয়েজ। এই স্পিকার এর ডিজাইনও অনেক চমৎকার রয়েছে।

স্পিকারটি চালাতে গেলে আপনাদের টোটাল এনার্জি দরকার হবে ৬ ওয়াট এর। আর এখানে যে অডিও ইনপুট করতে হবে সেটি আরেকটি মাউথ পিস এর মাধ্যমে তারের সাহায্যে ইনপুট করতে হবে।

৬০ থেকে ১৫ হাজার হার্জ ফ্রিকোয়েন্সি পাওয়া যাবে এই স্পিকার এর মাধ্যমে। এটি অনেক হালকা আর এর ওজন হচ্ছে মাত্র ৮৫০ গ্রাম । মসজিদের ছাদে লাগানোর জন্য আপনারা এটি নিঃসন্দেহে নিতে পারেন।

এখানে বলে রাখা ভালো এই স্পিকারটি কিন্তু খুব বেশি বড় মসজিদের জন্য ভালো হবে না। যদি মসজিদটি একটু ছোট কিংবা মাঝারি সাইজের হয়ে থাকে তাহলে এটি মসজিদে লাগাতে পারেন।

Ahuja SCM-15T

স্পিকারটি ছিল ছাদে লাগানোর জন্য । কিন্তু এখন যদি শেয়ার করা হচ্ছে এটি একটি কলাম স্পিকার যেটি মসজিদের দেওয়ালে লাগতে হবে। আর এই কলাম স্পিকার গুলোর সাউন্ড বেশ ভালো হওয়াতে আপনারা বড় মসজিদেও এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

এই স্পিকারটি চালাতে গেলে আপনাদেরকে ১০ ওয়াট বিদ্যুত ইনপুট করতে হবে। যার কারণে স্পিকারটি থেকে বেশ উচ্চমানের আওয়াজ পাওয়া যাবে।

ভালো ব্যাপার হচ্ছে এই মাইকটি যদি কেউ নেয় তাহলে তারা কোম্পানি থেকে সরাসরি এক বছরের ওয়ারেন্টি সার্ভিস পেয়ে যাবে।

একটি স্পিকার এর মধ্যে আপনারা দুইটি মাইক পেয়ে যাবেন। আর স্পিকারটি দিয়ে সুন্দরভাবে মসজিদে নামাজ পড়ানো সহ খুতবা গুলো পাঠ করা যাবে।

এই স্পিকার গুলো যদি মসজিদের দেওয়ালের এক কোণে লাগানো যায় তাহলে পুরো মসজিদটিতে এটি সাউন্ড পৌঁছে দিতে সক্ষম হবে। এই কারণে যদি আপনাদের মসজিদের সাইজ কিছুটা বড়ও হয়ে থাকে তাহলে এই মডেলের একটি স্পিকার নিতে পারেন।

এখানে বলে রাখা ভালো এই স্পিকারটি আপনারা তিন হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৩৫০০ টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন। বিভিন্ন দোকানে বিভিন্ন দাম এটি বিক্রি হয়। তবে হ্যাঁ অবশ্যই ভালোভাবে যাচাই করে তারপর স্পিকার টি দোকান থেকে নিতে হবে ।

Ahuja SCM-15XT 10-Watt PA Column Speaker

এটিও অউঝা কোম্পানির আরেকটি কলাম স্পিকার। এই স্পিকার এর সাউন্ড আরো বেশি উচ্চমানের। বড় মসজিদের জন্য স্পিকারটি নেওয়া খুবই ভালো হবে। আপনারা একটি লম্বা স্পিকার এর মধ্যে মোট দুইটি ছোট ছোট মাইক পেয়ে যাবেন যেগুলো সাউন্ড খুব ভালো।

দশ ওয়াট পাওয়ার সাপ্লাই এর মাধ্যমে স্পিকারটি চালানো যাবে। এছাড়াও এই সাউন্ড সিস্টেমটির ফ্রিকোয়েন্সি হচ্ছে ১৫০ হার্জ থেকে ১০ হাজার হার্জ পর্যন্ত। এর ফ্রিকোয়েন্সি বেশি হওয়ার কারণে এর থেকে বেশি উচ্চ শব্দ পাওয়া যাবে।

আপনারা সর্বোনিম্ন ১০০ ভল্ট কারেন্ট সাপ্লাইয়ের মাধ্যমে সাউন্ড বক্স টি পরিচালিত করতে সক্ষম হবে। মাইকের ওজন হচ্ছে ৩.৫ কেজি।

এই স্পিকারটি ক্রয় করলে আপনারা কোম্পানি থেকে এক বছরের একটি সার্ভিস ওয়ারেন্টি ও পেয়ে যাবেন। যার কারণে যদি এই ১ বছর এর মধ্যে স্পিকারটির মধ্যে কোন সমস্যা দেখা যায় তাহলে কোম্পানি থেকে বিনামূল্যে এটি সারিয়ে দেওয়া হবে।

স্পিকারটি হচ্ছে মেড ইন ইন্ডিয়া এবং এর ডেমীনেশন হচ্ছে 165 x 455 x 145 মিলি মিটার। আরেকটি চমৎকার বিষয় হচ্ছে এই স্পিকার এর মধ্যে আপনারা পেয়ে যাবেন ওয়াটার রেজিস্টেন্স এর মত টেকনোলজি।

এটিকে আপনারা মসজিদের বাইরে এবং ভেতরে যে কোন জায়গায় সেট করতে পারবেন দেওয়াল এর মধ্যে। আর এই স্পিকার এর ওপরে সুন্দর একটি ক্লিপ দেওয়া আছে যেটার মাধ্যমে খুব সহজেই দেয়ালের মধ্যে লাগানো যাবে।

মাত্র ২৮০০ টাকা থেকে শুরু করে তিন হাজার টাকার মধ্যে আপনারা এই স্পিকার টি যে কোন অনলাইন শপ থেকে পেয়ে যাবেন। এছাড়া বিভিন্ন অফলাইন শপ এ স্পিকারটির নাম বললে আপনারা সেখানেও পেয়ে যেতে পারেন।

Ahuja ASC-40T PA Column Speaker

যদি মসজিদের আকার অনেক বেশি বড় হয়ে থাকে তাহলে এই স্পিকারটি নিতে হবে। যত বড় মসজিদেই হোক না কেন এটি মসজিদের কোনায় লাগালে পুরো মসজিদের মধ্যে সাউন্ড সাপ্লাই দিতে সক্ষম হবে।

একটি লম্বা স্পিকার এর মধ্যে আপনারা মোট চারটি ভালো ভালো মাইক পেয়ে যাবেন। আর এই মাইকগুলোর সাউন্ড যথেষ্ট ক্লিয়ার এবং যথেষ্ট লাউড।

তবে এই স্পিকার এর সাইজ এবং সাউন্ড বেশি হওয়ার কারণে এর দাম ও কিছুটা বেশি পড়বে। অর্থাৎ এটি আপনারা ৮০০০ টাকার মধ্যে কিনতে পারবেন।

আহুজা কোম্পানির এই স্পিকারটির আরএমএস হচ্ছে ৩০ ওয়াট এর। বড় স্পিকার হওয়ার কারণে এর ওজন ও বেশ কিছুটা বেশি রয়েছে , অর্থাৎ স্পিকারটির ওজন হচ্ছে ৫ কেজি ১০০ গ্রাম।

১৫০ হার্জ থেকে শুরু করে ১০ হাজার হার্জ পর্যন্ত সাউন্ড তৈরি করতে সক্ষম এই আহুজা কোম্পানির চমৎকার মাইক টি। মাত্র ১০০ ভোল্ট বিদ্যুত সাপ্লাই ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনারা স্পিকারটি থেকে আওয়াজ শুনতে পারবেন।

এছাড়াও এখানে আপনারা মেক্সিমাম ৪৫ ওয়াট বিদ্যুৎ এর ইনপুট দিতে পারবেন। যেহেতু এটি একটি কলাম এন স্পিকার এই কারণে এর ডিমেনশন হচ্ছে 150 x 910 x 130 মিলিমিটার।

তবে এটি ক্রয় করলে কোম্পানি থেকে বেশ ভালো সময়ের জন্য ওয়ারেন্টি সার্ভিস পাওয়া যাবে। যাইহোক মসজিদের আকার যদি অনেক বেশি বড় হয়ে থাকে তাহলে আপনারা এই স্পিকারটি নিয়ে মসজিদে লাগাতে পারেন।

Ahuja ASC-20T 15W PA Column Speaker

আহুজা কোম্পানির এটিও একটি কলাম এন স্পিকার। তবে এই স্পিকার এর সিস্টেম এবং দামে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। এখানে যদি আপনাদের মসজিদের সাইজ খুব বেশি বড় না হয় আবার খুব বেশি ছোটও না হয় তাহলে কেবল এটি নিতে হবে।

যদি মসজিদের আকার বেশি ছোট হয় এবং এটি নেন তাহলে সাউন্ড অনেক বেশি শোনা যাবে। আর যদি মসজিদের আকার মাঝারি সাইজের হয় তাহলে এই স্পিকার নিলে একদম ভালো হবে এবং পুরো মসজিদ সাউন্ড কমপ্লিট করা যাবে।

তো এই স্পিকারটি থেকে সাউন্ড পেতে হলে আপনাদেরকে এখানে ১৫ ওয়াট কারেন্ট দিতে হবে। আর একটি লম্বা বক্সের মধ্যে যেহেতু দুইটি বড় মাইক রয়েছে এই কারণে এখান থেকে বেশ ভালো লাউড শব্দ পাওয়া যাবে।

স্পিকার এর মধ্য থেকে যে শব্দটি বের হবে সেই শব্দের ফ্রিকোয়েন্সি হচ্ছে ১৫০ হার্জ থেকে ১০ হাজার হার্জ পর্যন্ত।

বক্সের মধ্যে স্পিকার গুলো হলো Tower টাইপের সুন্দর সিস্টেম এর। এই স্পিকার এর ওজন হচ্ছে দুই কেজি ৭০০ গ্রাম বা ২.৭০ কেজি। যার কারণে এটি মসজিদের দেওয়ালের যে কোন অংশে সুন্দরভাবে ফিট করা যাবে।

আর এটি যেহেতু মেইড ইন ইন্ডিয়া এই কারণে ভারত থেকে বানিয়ে তারপর বাংলাদেশে আমদানি করা হয়েছে । আশা করি এই স্পিকারটি নিলে আপনার পুরো মসজিদ সাউন্ড এর মাধ্যমে কভার করতে পারবেন ইনশাল্লাহ ।

তবে এর দাম হচ্ছে পাঁচ হাজার টাকার আশেপাশে। বিভিন্ন অনলাইন শপ থেকে এটি নিতে পারবেন এছাড়াও আপনার আশেপাশের মার্কেট এর মধ্যে যেখানে স্পিকার এর দোকান রয়েছে সেগুলোতেও এটি নেওয়া যাবে।

মসজিদের সাউন্ড বক্সের দাম কত?

আপনারা ওপরে দেখেই এসেছেন যে মসজিদের সাউন্ড বক্সের দাম কত । এখানে আপনারা মসজিদের মধ্যে বিভিন্ন দামের সাউন্ড বক্স পেয়ে যাবেন। একটি মসজিদের আকার অনুযায়ী এই সাউন্ড বক্সগুলো নিতে হবে।

যদি মসজিদের আকার অনেক বড় হয়ে থাকে তাহলে বড় একটি স্পিকার নিতে হবে, না হলে পুরো মসজিদে সাউন্ড পৌঁছানো সম্ভব নয়। আর যদি মসজিদের আকার একটু ছোট হয় তাহলে ছোট ছোট স্পিকার গুলো নিলেও কাজ হয়ে যাবে।

এখানে আপনারা মসজিদের স্পিকার গুলোর মধ্যে ২৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ৮০০০ টাকা কিংবা ১০ হাজার টাকা দামের পর্যন্ত স্পিকার পাবেন। কিন্তু আপনার মসজিদের জন্য কোনটি পারফেক্ট হবে সেটা বিবেচনা করেই স্পিকারগুলো ক্রয় করতে হবে।

পরিশেষে

এই পোস্টে আপনাদের সাথে মসজিদের সাউন্ড বক্সের দাম কত এবং এই মসজিদের স্পিকারের দাম গুলো নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেছি। এখানে প্রতিটা স্পিকার ছিল আহুজা কোম্পানির।

এর প্রধান কারণ হচ্ছে এই কোম্পানি থেকে যে সমস্ত স্পিকার বানানো হয় সেগুলো অনেক বেশি টেকসই হয় এবং দামও কিছুটা কম থাকে। তবে এগুলো পছন্দ না হলে আপনারা অন্যান্য কোম্পানির ও মসজিদের সাউন্ড সিস্টেম দেখতে পারেন।

তবে আজকের পোস্টে দেখানো এই মসজিদের সাউন্ড বক্সগুলো আপনাদের কেমন লেগেছে সেটা অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন এবং যদি কোন প্রশ্ন থাকে সেটাও আমাদেরকে জিজ্ঞেস করবেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *